মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

প্রথম ম্যাজিস্ট্রেট ও জাজ জনাব টিলম্যান হেঙ্কেল এবং তার সহকারী জনাব রকি

প্রথম ম্যাজিস্ট্রেট ও জাজ জনাব টিলম্যান হেঙ্কেল এবং তার সহকারী জনাব রকি

মুড়লীতে গভর্ণর জেনারেল প্রথম যখন কোর্ট স্থাপন করেন তার প্রথম জজ ও ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ পান জনাব টিলম্যান হেঙ্কেল এবং জনাব রিচার্ড রকি নিয়োগ পান তার রেজিস্টার হিসেবে। প্রথম মাসে জাজ বেতন পান ১,৩০০ রম্নপি এবং ২৭ ফেব্রম্নয়ারী ১৭৮৪ সাল থেকে তার বেতন বৃদ্ধি পেয়ে ২,০০০ রম্নপিতে পরিণত হয় এবং তিনি ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের জন্য আরো ৬০০ রম্নপি বেশি পেতেন। পরবর্তীতে ৯ মে ১৭৮৬ জাজ হিসেবে তার বেতন কমিয়ে ১,১২০ রম্নপিতে ধার্য করা হয়। সিভিল কোর্টে যে আবেদনগুলো জমা পড়ত তার প্রাতিষ্ঠানিক ফি এর একটা অংশ তিনি পেতেন। রেজিস্টারের বেতন ছিল মাত্র ৩০০ রম্নপি।

টিলম্যান হেঙ্কেল ও রিচার্ড রকি এই দুজন ব্যক্তি যশোরের সকল প্রশাসনিক ও বিচারিক কর্মকান্ডের সাথে দীর্ঘদিন বিজড়িত ছিলেন। তারা ছিলেন সাধারণের চেয়ে একটু উঁচু মানের মানুষ। জনাব টিলম্যান হেঙ্কেলের নাম এখনোও স্মরণ করা হয়ে থাকে এবং তার প্রশাসনিক ইতিহাস লক্ষ্য করলে দেখা যায় তিনি প্রশংসনীয়ভাবে শাসন কার্য পরিচালনা করেছিলেন। প্রতিটি সমস্যা জর্জরিত প্রজার কাছে তিনি ছিলেন এক সুপরিচিত নাম-অন্যায় তার হাত থেকে শত হসত্ম দূরে আশ্রয় নিয়েছিল। প্রজাদের জন্য কোন সুবিধা প্রদান তার সাধ্যের বাইরে ছিল না। তার প্রশাসন কাঠামোর মূল মন্ত্র ছিল ‘এটা হলো সরকারের দায়িত্ব সাধারণ জনগণের জন্য সুখ ও শামিত্ম নিশ্চিত করা’। যদিও এটা কোম্পানির বাণিজ্যিক স্বার্থকে ক্ষুন্ন করে, তাও তিনি এই দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট ছিলেন। তার যুগের চেয়ে এই চিমত্মা চেতনা অনেক অগ্রগামী ছিল কারণ ঐ সময়ে সরকারি কর্মকর্তারা নেটিভদের শুধুমাত্র মুনাফা অর্জনের উপায় হিসেবে বিবেচনা করত। জনাব হেঙ্কেল কখনোই তার নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের ব্যবসায়িক স্বার্থের প্রতি অমনোযোগী ছিলেন না। কিন্তু তৎকালীন সময়ে যেসব অসহায় নেটিভরা বাণিজ্যিক অফিসারদের এবং জমিদারদের প্রজায় পরিণত হয়েছিল, তাদের বিষয়সম্পত্তির রক্ষক হিসেবে নিজেকে দাঁড় করানোর কাজটিকে তিনি তার কর্তব্যের একদম সামনের সারিতে রেখেছিলেন।

জনাব রকি ১৭৮১ সালে যশোরে তার দায়িত্ব পালন শুরম্ন করে। যখন তিনি জনাব হেঙ্কেলের অধীনস্থ ছিলেন তখন তিনি তার দৃষ্টিভংগির প্রতিপালন করতেন। কিন্তু যখন অফিসের কর্তায় পরিণত হলেন তখন তিনি তার নিজ নীতিতে অগ্রসর হলেন। এ কথা সত্য যে জনাব হেঙ্কেলের প্রশাসনিক ধারাবাহিকতার ফল এই জেলায় ইতিহাসে অনেকদিন যাবত অনুভূত হত। এই জেলার ইতিহাসের আগের নথিতে এই বিষয়ের সত্যতা দৃষ্টি আকর্ষণ করে যে, জনাব হেঙ্কেল ও রকি নামে দুজন এমন ব্যক্তি যারা ১৭৮১ সালের প্রথম প্রশাসনিক কাঠামো স্থাপনা ও লর্ড কর্ণওয়ালিসের ১৭৯৩ সালের চিরস্থায়ী বন্দোবসেত্মর মধ্যবর্তী সময়ে সামগ্রিক প্রশাসনের কর্মকান্ডের প্রধান হিসেবে ছিলেন, যারা জেলার প্রশাসনিক কাঠামোকে কাঁচা অবস্থা থেকে তাকে এমন একটা স্থায়ী কাঠামোতে রূপদান করেছিলেন যে তা আজও বলবৎ আছে।৫৬


Share with :

Facebook Twitter