যশোর জেলা প্রশাসক মহোদয়ের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড

ছবি: 

Student of the month স্বপ্ন হল সত্যি ---মাসের সেরা ছাএীদের হাতে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক, যশোর ড. মোঃ হুমায়ুন কবীর মহাদয় পুরষ্কার তুলে দিলেন বিশেষ অতিথি ছিলেন জনাব পারভেজ হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি) মহাদয়, জেলা শিক্ষা অফিসার জনাব মোহাঃ নাসিরউদ্দিন মহাদয় ও প্রধান শিক্ষক খোন্দকার সানজিদা ইসলাম সভাপতিত্ব করেন।"জেলা প্রশাসকের হাতে স্কুল ড্রেসশিশুর মুখে হাসি"গুণগত পরিবর্তনের মাধ্যমে শিক্ষার মানোন্নয়নে ড. মো: হুমায়ুন কবীর জেলা প্রশাসক, যশোর এর কর্ম-প্রচেষ্টায়যোগ হলো এক নতুন মাত্রা। তিনি আজ ১৩ জুন ২০১৫ যশোর সদর উপজেলারবাজুয়াডাংগা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের নতুন "স্কুল-ড্রেস" প্রদান করেন। প্রতিটি শিশু বিদ্যালয়ে বিদ্যমান পরিবেশে যাতেএকাত্ম হতে পারে, বঞ্চিত বোধ না করেশিক্ষার তেমনই একটি পরিবেশ তৈরীরলক্ষ্য নিয়ে "স্কুল-ড্রেস" বিতরণের এ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এরইধারাবাহিকতায় আরো ১০টি স্কুল বাছাই করা হয়েছে "স্কুল-ড্রেস" বিতরণের জন্য।আগামী ০২ মাসের মধ্যে এসব স্কুলে এ কার্যক্রম সমাপ্ত হবে। ইতোমধ্যেউপজেলা পর্যায়ে স্হানীয় জনপ্রতিনিধি, উপজেলা চেয়ারম্যান, মেয়রসহ স্হানীয়সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণও জেলা প্রশাসকেরনির্দেশে একই কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন। যশোরের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ুয়াসকল ছাত্র-ছাত্রী "স্কুল- ড্রেস" পরিধান করে স্কুলে যাবে – এ দৃশ্যসুদূরপরাহত নয়। উল্লেখ্য, শিক্ষাক্ষেত্রে Inclusive Development বা সকলেরজন্য উন্নয়ন নিশ্চিতকল্পে ড. মো: হুমায়ুন কবীর জেলা প্রশাসক, যশোরসরকারের নির্দেশিত দর্শন/পরিদর্শনের পাশাপাশি প্রতি শনিবার পিছিয়ে পড়াকিংবা খানিকটা সুবিধাবঞ্চিত স্কুল/কলেজ পরিদর্শন করেন। বিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবকদের সাথে আলাপ করেন এবং এদের নিয়ে আয়োজিত সমাবেশেশিক্ষা বিষয়ক তাঁর ভাবনা শেয়ার করেন। এসব মিথস্ক্রিয়া থেকে প্রাপ্ত তথ্যপরবর্তী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণে সহায়ক হয়। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্কুল ড্রেসবিতরণ কার্যক্রম এরুপ একটি উদ্যোগেরই অংশ। এই উদ্যোগকে ইতোমধ্যে যেসবসরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদসহ যশোরের আপামর জনসাধারণ স্বাগত জানিয়েছে এবং সহযোগিতার হাতবাড়িয়ে দিতে চেয়েছে তাদেরসকলকে জেলা প্রশাসন, যশোর এর পক্ষ থেকে ধন্যবাদজানানো হচ্ছে। সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসেরসাঁতারে সোনা জয়ী যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া পাঁচকবর গ্রামের মেয়েমাহফুজা আক্তার শিলার বাড়িতে গেলেন জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীর। বুধবারদুপুরে শিলার বাড়িতে উপস্থিত হন তিনি। এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)রাজিব আহসান উপস্থিত ছিলেন।এ সময় জেলা প্রশাসক মাহফুজার বাবা-মাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান এবং বিভিন্নসময়ে মাহফুজার সাঁতার প্রতিযোগিতায় অর্জনকৃত পদক ও ক্রেস্ট দেখেন।তখন জেলা প্রশাসকের কাছে অভাব-অনটনের কথা জানান শিলার বাবা আলী আহম্মেদ গাজী ও মাতা করিমন নেছা।শিলার বাবা বলেন, তাদের বাড়িতে নেই বিদ্যুৎ এবং প্রবেশের পথ। জেলা প্রশাসকতাৎক্ষণিক শিলার বাড়িতে যাতে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে বিদ্যুৎ পৌঁছায় সেইআশ্বাস দেন। এ ছাড়াও বাড়িতে প্রবেশের রাস্তা সংস্কারের আশ্বাসসহ বেদখল হওয়াশিলার বাবার পৈত্রিক সম্পত্তি পুনরুদ্ধারে আইনি সহয়তা প্রদানেরপ্রতিশ্রুতি দেন।রোববার ১০০ মিটার ও সোমবার ৫০ মিটার সাঁতার প্রতিযোগিতায় স্বর্ণপদক অর্জনকরেন মাহফুজা দুটি স্বর্ণপদক অর্জন করে বাংলদেশি প্রথম নারী হিসেবে রেকর্ডগড়েছেন তিনি।